বাংলাদেশ শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১

আইফোন ১৬ মডেলে থাকবে ১৬ জিবি ব়্যাম

দৈনিক প্রথম সংবাদ ডেস্ক

প্রকাশিত: মার্চ ২৮, ২০২৪, ০৩:৪৯ এএম

আইফোন ১৬ মডেলে থাকবে ১৬ জিবি ব়্যাম

শিগগিরই বাজারে আসছে পরবর্তী প্রজন্মের আইফোন ১৬। ইতিমধ্যে এই ফোন নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। কী ফিচার্স থাকবে কী থাকবে না তাই শুরু হয়েছে চর্চা।

শোনা যাচ্ছে আইফোন ১৬ মডেলে মিলবে ১৬ জিবি ব়্যাম, অ্যাডভান্স এআই ফিচার পাওয়া যাবে স্মার্টফোনে। গুগল পিক্সেল ৮ প্রো এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৪ স্মার্টফোনকে চ্যালেঞ্জ জানাবে আইফোন ১৬।

এই মুহূর্তে শুধু আইফোন ১৫ প্রোতে রয়েছে ৮ জিবি ব়্যাম। আর ৬ জিবি ব়্যাম রয়েছে আইফোন ১৫ এবং আইফোন ১৫ প্লাস স্মার্টফোনে। আইফোন ১৬ প্রথম স্মার্টফোন হতে চলেছে যেখানে ১৬ জিবি ব়্যাম দেখা যেতে পারে। কোম্পানির তরফে নিশ্চিত না জানানো হলেও, এক্স প্ল্যাটফর্মে ইতিমধ্যে ফোনের ফিচার্স নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে।

এক্স প্ল্যাটফর্মে একাধিক টিপস্টারদের দাবি, এতে আগের থেকে বেশি স্টোরেজ ও ব়্যাম পাওয়া যাবে। গুগল পিক্সেল ৮ প্রো এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৪ সিরিজকে টেক্কা দিতে এতেও গুচ্ছের এআই ফিচার্স যোগ করতে পারে অ্যাপল।

বিশ্বে অ্যাপল একমাত্র কোম্পানি যারা এনএএনডি ফ্ল্যাশ প্রযুক্তি ভিত্তিক স্টোরেজ ব্যবহার করে। অর্থাৎ স্টোরেজ স্পিড কখনই সমস্যা ছিল না। তবে ক্যাপাসিটি ছিল কম। যেই দৌড়ে ওয়ানপ্লাস, স্যামসাং, গুগল ইতিমধ্যে ১৬ জিবি ব়্যাম দেওয়া শুরু করে দিয়েছে।

১৬ জিবি ব়্যামের পাশাপাশি আইফোন ১৬ মডেলে মিলবে ২৫৬ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ দিতে পারে অ্যাপল। বেস মডেলে না থাকলেও প্রো মডেলে মিলবে এই ফিচার্স। তবে ব়্যাম বাদে আরও একটি জায়গায় চমক দিতে পারে কোম্পানি। তা হল অন-ডিভাইস এআই অ্যাপ্লিকেশন।

গুগল কিছুদিন আগেই জানিয়েছে, পর্যাপ্ত হার্ডওয়্যার না থাকায় পিক্সেল ৮ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা অন-ডিভাইস এআই ব্যবহার করতে পারবেন না। যেহেতু এআই ফিচার দেওয়ার জন্য অধিক মেমরির প্রয়োজন হয় তা বিষয়টি মাথায় রাখতে পারে অ্যাপল।

আইফোন ১৬-তে লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল বা এলএলএম মডেল ব্যবহার করা হতে পারে। এই মডেলের উপর ভিত্তি করে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার নানা সুবিধা পেয়ে থাকেন ব্যবহারকারীরা। এখনও পর্যন্ত বাজারে খুব কম স্মার্টফোন রয়েছে যাতে অ্যাডভান্স এআই ফিচার রয়েছে। যদিও এই দৌড়ে দ্রুত গতিতে কাজ করছে স্যামসাং।

Link copied!

সর্বশেষ :