বাংলাদেশ শনিবার, ২০ জুলাই, ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১

এবার ইলন মাস্কের লড়াই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে

দৈনিক প্রথম সংবাদ ডেস্ক

প্রকাশিত: মার্চ ৩১, ২০২৪, ০৯:৩৪ পিএম

এবার ইলন মাস্কের লড়াই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে

ইলন মাস্ক

আরও উন্নত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন চ্যাটবট তৈরিতে উঠেপড়ে লেগেছেন প্রযুক্তি উদ্যোক্তা ইলন মাস্ক। ইতিমধ্যে মার্কিন প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান ওপেনএআইয়ের তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাচালিত (এআই) চ্যাটবট ‘চ্যাটজিপিটি’-এর সঙ্গে পাল্লা দিতে নিজস্ব চ্যাটবট চালু করেছেন খুদে ব্লগ লেখার সাইট এক্সের (সাবেক টুইটার) প্রধান।

এবারে তাঁর মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এক্সএআইয়ের তৈরি ‘গ্রক’ নামের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাচালিত চ্যাটবটটির নতুন সংস্করণ বা ‘গ্রক ২’ এ সপ্তাহেই উন্মুক্ত করার কথা বলেছেন তিনি। গত শুক্রবার এক এক্স পোস্টে এ ঘোষণা দেন মাস্ক। নতুন সংস্করণটি মূলত গ্রকের পরীক্ষামূলক সংস্করণ।

চ্যাটবট হলো একধরনের কম্পিউটার প্রোগ্রাম বা সফটওয়্যার, যা আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স (এআই) বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে গঠন করা হয়। ইলন মাস্ক বলেছেন, বর্তমানে চালু থাকা সব এআইকে সব দিক থেকে ছাড়িয়ে যাবে গ্রক ২। এখন এটি নিয়ে পরীক্ষা চালানো হচ্ছে।

গ্রক চ্যাটবটটি এক্স প্ল্যাটফর্ম থেকে তাৎক্ষণিক তথ্য সংগ্রহ করে ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে। আর তাই ব্যবহারকারী প্ল্যাটফর্মটি ব্যবহারের সময় চাইলেই গ্রক চ্যাটবটের মাধ্যমে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানতে পারবেন।

গত বৃহস্পতিবার এক্সএআইয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, গ্রক চ্যাটবটের বর্ধিত সংস্করণ গ্রক ১.৫। এটিই মূলত গ্রক ২ বা গ্রকের দ্বিতীয় সংস্করণ। পরীক্ষামূলক ব্যবহারকারীদের জন্য আগামী সপ্তাহ থেকে এটি চালু হয়ে যাবে।

এ মাসের শুরুতে ইলন মাস্ক বলেন, এক্সআই হবে ওপেন সোর্স বা সবার জন্য উন্মুক্ত। তার আগে তিনি মাইক্রোসফটের অর্থায়নে তৈরি ওপেনএআইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেন। তাঁর অভিযোগ, প্রতিষ্ঠানটি লাভজনক মডেলের যেতে এর মূল লক্ষ্য থেকে সরে গেছে। ওপেন এআই ও গুগলের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে তিনি গত বছর এক্সএআই চালু করেন।

এদিকে ওপেন এআই বলেছে, তাঁদের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তিতে নতুন ফিচার যুক্ত হচ্ছে। এখন এটি মানুষের কণ্ঠস্বর নকল করতে সক্ষম হবে এবং তা দিয়ে টেক্সট পড়ে শোনাতে সক্ষম হবে।

গত শুক্রবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, মাইক্রোসফট ও ওপেন এআই মিলে ২০২৮ সাল নাগাদ ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করে একটি ডেটা সেন্টার তৈরির পরিকল্পনা করছে। এতে যুক্ত থাকবে স্টারগেট নামের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাযুক্ত সুপারকম্পিউটার।

Link copied!

সর্বশেষ :